মহাপ্রস্থানের পথে চলে গেলেন অসমের প্রাক্তন মুখ্য মন্ত্রী তরুণ গগৈ ।

0
60

আনন্দ মুখোপাধ্যায় :: ২৪ ঘন্টা লাইভ :: ২৩ শে, নভেম্বর :: গুয়াহাটি :: প্রয়াত হলেন অসমের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ। গত ২৫ অগস্ট করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন গগৈ। প্রায় দু’মাস হাসপাতালে ভরতি ছিলেন তিনি। শেষে গত ২৫ অক্টোবর বাড়ি ফেরেন তিনি। কিন্তু তারপর বেশি আর বাড়ি থাকতে পারেননি। ফের গত ২ নভেম্বর হাসপাতালে ভরতি করা হয় তাঁকে। তাঁর বেশ কিছু অঙ্গপ্রত্যঙ্গ কাজ না করায় অবশেষে তাঁকে ভেন্টিলেশন সাপোর্টে রাখা হয়েছিল।

তরুণ গগৈয়ের শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। অসমের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর পুত্র গৌরব গগৈ জানিয়েছিলেন, তাঁর বাবাকে দেখতে অনেকেই এসেছেন। দেশের বিভিন্ন মুখ্যমন্ত্রীরও খোঁজখবর নিচ্ছিলেন। শেষমেশ সোমবার বিকেলে প্রয়াত হলেন গগৈ।

তাঁর শারীরিক অবস্থা অতি সংকটজনক ছিল। এমনটাই জানিয়েছিলেন অসমের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা। রবিবার বিকেলের পর থেকেই কংগ্রেসের এই বর্ষীয়ান নেতার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটতে শুরু করেছিল। শ্বাসকষ্ট নিয়ে গত ২ নভেম্বর থেকে গুয়াহাটি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভরতি ছিলেন গগৈ।

এ দিন সকালেই হাসপাতালে গিয়েছিলেন রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা। তিনি সাংবাদিকদের বলেছিলেন, ‘প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। তাঁকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে। তাঁর জন্য ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করছি।’ কিন্তু ফিরে আসা আর হল না তরুণ গগৈ-এর। অবশেষে জীবনের লড়াইয়ে হেরে গেলেন তরুণ গগৈ । সোমবার বিকেলে তাঁর মৃত্যু হল। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর।

কংগ্রেসের মুখ্যমন্ত্রী হিতেশ্বর শইকীয়াৰ মৃত্যুর পর তিনি অসমের মুখ্যমন্ত্রী হন এবং পনেরো বছর তিনি অসমের মুখ্যমন্ত্রী পদে আসীন ছিলেন । অসম থেকে তিনি ৬ বার সাংসদ কংগ্রেস প্রার্থী হিসাবে নির্বাচিত হয়েছেন তরুণ গগৈ। স্বাভাবিক কারণেই রাজনৈতিক জীবনে বিপুল অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করেছিলেন তিনি। বিশেষ করে তাঁর মুখ্যমন্ত্রীত্তের প্রথম কয়েক বছর বিচ্ছিন্নতাবাদী উলফা উগ্রপন্থীদের দ্বারা অসমে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবস্থা উদ্বেগজনক হয়ে পরে কিন্তু তিনি অত্যন্ত পটু এবং শক্ত হাতে তার মোকাবিলা করে অসমের শান্তি ফিরিয়ে আনেন । তাঁর মৃত্যুতে অসম সহ ভারতের রাজনৈতিক মহলে শোকের ছায়া নেমে আসে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here