মাছ চাষে নজরকাড়া সাফল্য হলদিয়ার, চাষিদের দরাজ প্রশংসায় ‘সিফা’

0
390

নিজস্ব সংবাদদাতা :: ২৪ ঘন্টা লাইভ :: ৬ ই, মার্চ ::
হলদিয়া :: মাছ চাষে হলদিয়ায় নজরকাড়া সাফল্য। সেই খবর পেয়েই কেন্দ্রীয় মৎস্য গবেষনা কেন্দ্র ‘সিফা’র অধিকর্তা নিজেই একদল মৎস্য বৈজ্ঞানিককে সঙ্গে নিয়ে হাজির হলদিয়ায়। খোদ কেন্দ্রীয় মৎস্য গবেষণা কেন্দ্রের অধিকর্তা হলদিয়ায় আসায় যারপরনাই খুশি এলাকার মাছ চাষিরা।

দেশের মানচিত্রে ক্রমেই মাছ চাষে অনন্য একটি জায়গা করে নিচ্ছে পূর্ব মেদিনীপুরের শিল্পশহর হলদিয়া। গত কয়েকবছর ধরে হলদিয়া ব্লক মৎস্য দফতরের উদ্যোগে ও স্থানীয় মানুষজনের সহযোগিতায় এখানে চলছে মাছ চাষ। এর আগেও বহু মৎস্য বৈজ্ঞানিকরা এসেছেন। এবার কেন্দ্রীয় মিঠেজল মৎস্য গবেষনা কেন্দ্র ‘সিফা’র অধিকর্তা বিন্দু আর পিল্লাই নিজেই কয়েকজন মৎস্য বিজ্ঞানীকে নিয়ে হলদিয়া এলেন মাছ চাষিদের সঙ্গে দেখা করতে।
সিফা’র অধিকর্তা বিন্দু আর পিল্লাইয়ের সঙ্গেই হলদিয়ায় এসেছিলেন মৎস্য বৈজ্ঞানিক হিমাংশু কুমার দে, এস অধিকারী, কান্তা দাস মহাপাত্র, দেবনারায়ন চট্টোপাধ্যায়, বি এন পাল, কে মূর্মু ও ফারহানা হক। ভুবনেশ্বরে অবস্থিত সেন্ট্রাল ইনস্টিটিউট অফ ফ্রেশওয়াটার অ্যাকুয়াকালচার ( সিফা )-র প্রতিনিধিরা হলদিয়ায় মাছ চাষের পুকুরগুলি ঘুরে দেখেন। কথা বলেন এলাকার মাছ চাষিদের সঙ্গে। মাছ চাষ করতে গিয়ে চাষিরা কী কী ধরনের অসুবিধার সম্মুখীন হন তা নিয়েও চলে আলোচনা।
শুক্রবার হলদিয়া ভবনের কনফারেন্স রুমে আয়োজিত আলোচনা সভায় ৬০ জন মৎস্যজীবী উপস্থিত ছিলেন। হলদিয়ার এই সব মাছ চাষিদের মধ্যে কেউ করেন পেংবা মাছের চাষ কেউবা আমুর কার্প, গিফট তেলাপিয়া, জয়ন্তী রুই, আমেরিকান পমফ্রেট , মুক্তোগাছা বা মিল্ক ফিশ। আবার কেউ কেউ দেশি মাগুর, পাবদা বা ট্যাংরার মতো মাছের বানিজ্যিক চাষ করেন। এছাড়াও রুই কাতলা ও মৃগেল প্রভৃতি মাছের চাষতো আছেই।

‘সিফা’র অধিকর্তা বিন্দু আর পিল্লাই সহ একদল মৎস্য বিজ্ঞানী হলদিয়ার একাধিক মাছ চাষের পুকুর ঘুরে দেখেছেন। কোন প্রক্রিয়ায় হলদিয়ায় মাছ চাষ হচ্ছে সেব্যাপারেও মাছ চাষিদের সঙ্গে কথা বলেছেন বিজ্ঞানীরা। শুক্রবার হলদিয়া ভবনে মাছ চাষিদের কাছে চাষের অভিজ্ঞতা শোনেন মৎস্য বৈজ্ঞানিকদের দল।
হলদিয়া ভবনের কনফারেন্স রুমে আয়োজিত আলোচনা সভায় হলদিয়া ব্লকের ৫ জন মাছ চাষিকে সংবর্ধনা দেয় ‘সিফা’। আরতী বর্মন, সেফালী দলুই মান্না, হরি বর্মন, পবিত্র মুখার্জী ও সফি আহমেদকে মৎস্যক্ষেত্রে সার্বিক অবদানের জন্য বিশেষভাবে সম্মানিত করা হয়।

শেফালি দোলুই মান্না হলদিয়া ব্লকের চাউলখোলা গ্রামের একটি স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্যা। এলাকার মহিলাদের নিয়ে কেবল মাছ চাষেই উৎসাহিত করেন এমন নয়, ইলিশ সংরক্ষণ-সহ বিভিন্ন ধরনের জনসচেনতামূলক কাজে সক্রিয়ভাবে মহিলাদের অংশগ্রহণে বিশেষ ভূমিকা পালন করেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here