করোনা নিয়ে আশার বাণী শুনিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় – সোমবার থেকেই পশ্চিমবঙ্গে খুলছে রাজ্য সরকারের সব অফিস !

0
20

আনন্দ মুখোপাধ্যায় :: ২৪ ঘন্টা লাইভ :: ১৮ই,এপ্রিল :: কোলকাতা :: গতকাল বিকেলে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব লব আগরওয়াল এক সংবাদ সম্মেলনে করোনা নিয়ে আশার বাণী শুনিয়েছেন। তিনি বলেন, দেশের ১৭টি রাজ্যের ৩২৫টি জেলা এখন করোনাশূন্য। ওই জেলায় করোনায় আক্রান্ত নেই। তবে তিনি জানান, আগের ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছে ৯৪১ জন। আর সংকটমুক্ত হয়েছে ১৮৩ জন। সব মিলিয়ে এখন পর্যন্ত মৃত মানুষের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪১৪। আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ১২ হাজার ৩৮০। আক্রান্ত ও মৃত্যু সবচেয়ে বেশি মহারাষ্ট্রে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব লব আগরওয়াল

পশ্চিমবঙ্গ সরকার ঘোষণা করেছে , আগামী সোমবার থেকে খুলে দেওয়া হবে রাজ্য সরকারের সব অফিস। তবে এখন মোট কর্মীর ২৫ শতাংশ অফিস করবেন। সব কর্মীকে রুটিন করে দায়িত্ব পালন করতে হবে। আবার সব কর্মীকে রুটিন করে ছুটি ভোগ করতে হবে।

গতকাল বৃহস্পতিবার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্য সচিব রাজীব সিনহা এক নির্দেশিকায় এ কথা জানান। ওই নির্দেশিকায় বলা হয়, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কর্মীরা কাজ করবেন। আর প্রতিটি দপ্তরের শীর্ষ কর্মকর্তা প্রতিদিনের বিভিন্ন কর্মকর্তা ও কর্মচারীর তালিকা তৈরি করবেন। ভাগ করে দেবেন প্রতিদিনকার কাজের তালিকা।

এর আগে অবশ্য কেন্দ্রীয় সরকারের নির্দেশে ট্রেজারি, জেলা প্রশাসন দপ্তর, পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস, কারা প্রশাসনসহ অত্যাবশ্যকীয় এবং জরুরি সেবার সঙ্গে যুক্ত সব দপ্তর খোলা রাখা হয়েছিল। এবার রাজ্যের বাকি দপ্তর খোলার নির্দেশ দেওয়া হলো। অবশ্য গত বুধবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চটকল, ছোট নির্মাণ শিল্পকারখানা, ক্ষুদ্র শিল্প, ইটভাটায় শ্রমিকদের কাজের অনুমতি দিয়েছিলেন। খুলে দিয়েছিলেন চা–বাগানও।

গতকাল পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সচিবালয় নবান্নে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা জানান, পশ্চিমবঙ্গে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ২৪ জন আক্রান্ত হয়েছে। এই নিয়ে রাজ্যে এখন চিকিৎসাধীন করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৪৪। আর মৃত রোগীর সংখ্যা ১০। অন্যদিকে, এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৫১ জন। ফলে, সব মিলিয়ে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৯৫। রাজ্যে করোনার নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৩ হাজার ৮১১ জনের। হোম কোয়ারেন্টিনে আছে ৩৬ হাজার ৯৮২ জন। সরকারি কোয়ারেন্টিনে আছে ৩ হাজার ৯১৫ জন।

রাজীব সিনহা জানান, রাজ্যে মদ ও তামাকজাত দ্রব্য বিক্রির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। সেই সঙ্গে পাঁচজনের বেশি মানুষের জমায়েতের ওপরও নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here