BREAKING NEWS :: পশ্চিমবঙ্গের ভোটে মোদী অমিতের কথায় চিঁড়ে ভিজলোনা – গদিতে আসীন হতে যাচ্ছেন আবার মমতাই !

0
19

আনন্দ মুখোপাধ্যায় :: ২৪ ঘন্টা লাইভ :: ২রা,মে :: কোলকাতা :: মোটামুটিভাবে অর্ধেক রাউন্ডের ভোট গণনা শেষ হয়েছে এবং সঙ্গে সঙ্গে একটি বিষয়ও পরিষ্কার হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের হিন্দু সম্প্রদায় হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপিকে ভোট দেয়নি। যে রাজ্যে মোটামুটি ৭৫ শতাংশ হিন্দুর ভোট, সেখানে হিন্দু বাঙালি যদি বিজেপিকে ঢেলে ভোট দিত, যেমনটা তারা দিয়েছিল ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে, তবে নিঃসন্দেহে বিজেপি এ পর্যায়ে অনেকটাই এগিয়ে থাকত।এই মুহূর্তে এগিয়ে থাকার নিরিখে যে চিত্র আমরা দেখছি তাতে টিএমসি – ১৮০,বিজেপি ৮০ এবং আইএসপি এগিয়ে ২ টি আসনে এবং অন্যান্য ২টি আসনে এগিয়ে

২০১৪ সালের লোকসভা থেকে ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির হিন্দু ভোট ২১ শতাংশ থেকে বেড়ে ৫৭ শতাংশ হয়েছিল। এই মেরুকরণ ২০২১ সালে আরও তীব্র হবে বলে আশা করা গিয়েছিল। কিন্তু সাম্প্রদায়িক মেরুকরণের রাজনীতি ব্যর্থ করে দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গের বাঙালিরা । তবে তারা বিজেপিকে কিছু ভোট দিয়েছে বলেও মনে করেন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপকরা । তাঁদের মতে , বিজেপির মেরুকরণের রাজনীতি একেবারে ব্যর্থ হয়নি।

হিন্দুদের একটা বড় অংশ অবশ্যই বিজেপিকে ভোট দিয়েছে, তা না হলে বিজেপি ৩ (২০১৬) থেকে ৮০-তে (২০২১, এখন পর্যন্ত) পৌঁছাত না। বিজেপি ভালোই ধর্মীয় মেরুকরণ করে ফেলেছে এ রাজ্যে, এটা অস্বীকার করা যাবে না। কিন্তু অন্য সব রাজ্যের ক্ষেত্রে ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনের পর যেটা দেখা গিয়েছিল, সেটা এখানেও দেখা গেল। লোকসভা থেকে বিধানসভা ভোটে বিজেপির ভোট ১২ থেকে ১৬ শতাংশ কমেছে সব রাজ্যেই। এটা এখানেও খেটেছে।’

তবে হিন্দুদের একটা বড় অংশ যে তৃণমূলকে ভোট দিয়েছে, সেটাও অবশ্য স্বীকার করতে হবে । ‘পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতি অনেকাংশে পাল্টে গেল এ নির্বাচনে। একদিকে একটা হিন্দু ভোটব্যাংক তৈরি হলো, অন্যদিকে তৈরি হলো একটা ধর্মনিরপেক্ষ ভোট ব্যাংক । আর বামপন্থী ও কংগ্রেসিরা একেবারে মুছে গেল’। এখনো অবশ্য অর্ধেক গণনা বাকি। গণনা শেষ হওয়ার পরই পুরো চিত্র স্পষ্ট হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here